পুলিশের সকল কাজ হবে পেশাদারিত্ব ও সমন্বয়ের মাধ্যমে : লক্ষ্মীপুরে ডিআইজি

24

তাবারক হোসেন আজাদ, লক্ষ্মীপুর:

বাংলাদেশ পুলিশের চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি মোঃ আনোয়ার হোসেন বিপিএম (বার), পিপিএম(বার) বলেছেন, পুলিশের কাজ হচ্ছে জনগণের নিরাপত্তা বিধান করা। যথাযথ আইন মেনে পুলিশকে সেই কাজ করতে হবে। পুলিশের সকল কাজ হবে পেশাদারিত্ব ও সমন্বয়ের মাধ্যমে। প্রত্যেক পুলিশ কর্মকর্তাকে তার অধীনস্থদের নিয়ন্ত্রন করার মতা থাকতে হবে, তাদের সাথে সমন্বয়ের মাধ্যমে কাজ করতে হবে। সাধারন মানুষকে পেশাদারিত্বের সাথে সেবা দিতে হবে।

১২ সেপ্টেম্বর শনিবার দুপুরে লক্ষ্মীপুর জেলা পুলিশ লাইন্সে বিশেষ কল্যাণ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

লক্ষ্মীপুর জেলার সকল পুলিশ সদস্যকে সকল ধরনের দুর্নীতির উর্ধ্বে থেকে শতভাগ পেশাদারিত্বের সাথে তাদের দায়িত্ব পালন করতে নির্দেশনা প্রদান করে তিনি বলেন, থানায় আগত সেবা প্রত্যাশীদের যেন কোনরকম হয়রানি করা না হয়। জিডি, পুলিশ কিয়ারেন্স সার্টিফিকেট কিংবা মামলার েেত্র সকল ধরনের অনিয়ম দূর করে তিনি থানাকে একটি সেবাকেন্দ্র হিসেবে গড়ে তুলতে সকলকে নির্দেশ প্রদান করেন।

তিনি আরো বলেন, নিষ্ঠুর আচরণ পরিহার করে আইনের মাধ্যমে জনগনের সেবা নিশ্চিত করাই হলো পুলিশ বাহিনীর প্রধান কাজ। যারা বেআইনী কাজকর্ম করে পুলিশ বিভাগের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করবে তাদের বিরুদ্ধে তিনি কঠোর শাস্তির হুঁশিয়ারী উচ্চারণ করেন। পুলিশের আচরণ এবং ব্যবহারে যেন কোনোভাবেই কোন মানুষ কষ্ট না পায় সেদিকে লক্ষ্য রাখতে হবে ও থানা পুলিশের সেবার মান বৃদ্ধি করতে হবে বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

লক্ষ্মীপুর পুলিশ সুপার ড. এ এইচ এম কামরুজ্জামান (পিপিএম-সেবা) এর সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মোঃ রিয়াজুল কবির, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর) মংনেথোয়াই মারমা, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মিমতানুর রহমান (পিপিএম), সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (রামগতি সার্কেল) মারুফা নাজনীন, সহকারী পুলিশ সুপার (রায়পুর সার্কেল) স্পিনা রানী প্রামানিক সহ লক্ষ্মীপুর জেলার সকল থানার অফিসার ইনচার্জ, পুলিশ পরিদর্শক(তদন্ত), ডিআইও-১, ডিবি, ট্রাফিক ও কোর্ট এর ইনচার্জ, সকল তদন্তকেন্দ্র ও ফাঁড়ির ইনচার্জ সহ সকল ইউনিটের পুলিশ সদস্য বৃন্দ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here